bangla music

bangla music

জাতীয়

বিবাহ বার্ষিকীতে দোয়া চাইলেন সাবেক রেলমন্ত্রী

সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হকের বিয়ের ৭ বছর পূর্ণ হয়েছে আজ (রোববার)। ২০১৪ সালের ৩১ অক্টোবর তিনি চিরকুমার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে বিয়ে করেন কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মেয়া হনুফা আক্তারকে।রোববার নিজের ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে তিনি সবার কাছে দোয়া কামনা করে লিখেন, আজ আমাদের সপ্তম বিয়ে-বার্ষিকী। প্লিজ সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন’।

২০১৪ সালে রেলমন্ত্রী হিসেবে অভিষেকের পর একই বছরের ৩১ অক্টোবর তিনি বিয়ে করেন। ২০১৬ সালে তাদের ঘরে কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। এর দুই বছর পরে যমজ পুত্রের বাবা হন তিনি।১৯৪৭ সালের ৩১ মে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের বসুয়ারা গ্রামে মুজিবুল হক জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে তিনি চৌদ্দগ্রাম থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

আরও পড়ুন= বিশ্বের অন্যতম সফল ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানি। এশিয়ার অন্যতম ধনী ব্যক্তি তিনি।সম্প্রতি ১০০ বিলিয়ন বা ১০ হাজার কোটি ডলারের মালিক হওয়া ভারতের এই ব্যবসায়ী দানশীলও। শনিবার (৩০ অক্টোবর) হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি হুরুন ইন্ডিয়া একটি তালিকা প্রকাশ করেছে, সেই তালিকায় ২০২০ সালে ভারতে তৃতীয় সর্বোচ্চ দানশীল ব্যক্তি মুকেশ আম্বানি। এক বছরে তিনি অনুদান দিয়েছেন ৬৫৯ কোটি ৫৯ লাখ ৬৬ হাজার ৫৪৪ টাকা (প্রায় ৫৭৭ কোটি রুপি)।

শিক্ষা থেকে খাদ্য সুনিশ্চিত করাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দান করেছেন রিলায়েন্স গ্রুপের এই প্রধান।মুকেশ আম্বানির স্ত্রী নীতা আম্বানিও দীর্ঘদিন ধরে সমাজসেবার কাজে যুক্ত। বিশেষত আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া পরিবারের শিশুদের পড়াশোনা, দেখভালের কাজ করেন তিনি।

২০১০ সালে সামাজিক কাজের উদ্দেশ্যে রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা চালু করেন মুকেশ আম্বানি। এখন ভারতের বৃহত্তম স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার মধ্যে অন্যতম এটি। আগে এর নাম ছিল ধীরুভাই আম্বানি ফাউন্ডেশন। গ্রামোন্নয়ন, শিক্ষা, বিনামূল্যে চিকিত্সা, শিল্পের প্রসার, বৃত্তি প্রদান, বিশেষভাবে সক্ষমদের স্বনির্ভরতার মতো বিভিন্ন কাজে যুক্ত রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন। করোনা পরিস্থিতিতে বিভিন্ন স্থানে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার কাজও করেছে এই সংস্থাটি।