bangla music

bangla music

জাতীয়

মন্ত্রীর বাড়িতেই বিদ্রোহী প্রার্থী

আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে লালমনিরহাটে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছোট ভাইয়ের স্ত্রী সাজেদা জামান।বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া সাজেদা জামান সমাজকল্যাণমন্ত্রীর ছোট ভাই জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মাহবুবুজ্জামান আহমেদের স্ত্রী। তিনি নিজেও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহাবুবা রহমান চেয়ারম্যান পদে সাজেদা বেগমের মনোনয়নপত্র দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।মন্ত্রীর বাড়িতেই বিদ্রোহী প্রার্থীর বিষয়টি টক অব টাউনে পরিণত হয়েছে। দলীয় নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষদের মাঝে এ নিয়ে কৌতুহল দেখা দিয়েছে। তুষভান্ডার ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন বতর্মান চেয়ারম্যান নুর ইসলাম আহমেদ।

কালীগঞ্জ উপজেলায় ৮টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন ৫৫ জন, সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের সদস্য ১১১ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩২৭ জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দেন। এর মধ্যে ভোটমারী ইউনিয়নে ৪ জন, মদাতী ইউনিয়নে ৬ জন, তুষভান্ডারে ৫ জন, দলগ্রামে ১৩ জন, চন্দ্রপুরে ৫ জন, গোড়লে ৬ জন, চলবলায় ৮ জন ও কাকিনা ইউনিয়নে ৮ জন।

এ বিষয়ে কালীগঞ্জ মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও তুষভান্ডার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে বিদ্রোহী প্রার্থী সাজেদা জামান বলেন, ‘আমি মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্য কিন্তু আমাকে মনোনয়ন না দিয়ে বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগদান করা ব্যক্তিকে নৌকার প্রতীকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।’দলে দায়িত্বশীল পদে থাকার পরেও কেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেন- এমন প্রশ্নে সাজেদা জামান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার দল যেখানে নারী নেতৃত্বকে উৎসাহিত করছেন সেখানে ক্ষুদ্র স্বার্থের কারনে তার নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়নি।

তিনি দাবি করেন, দলে তার অনেক ত্যাগ রয়েছে। অথচ তাকে বাদ দিয়ে বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগদান করা ব্যক্তিকে নৌকার প্রতীকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন বলেন, দলের বাইরে কেউ কাজ করলে দল সিদ্বান্ত নেবে।লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেন বলেন, দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে কেউ যদি প্রার্থী হয়ে থাকেন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।