bangla music

bangla music

জাতীয়

৮ লাখ কোটি টাকায় গ্রামীণফোন কিনেছি, মন্ত্রীকে ফোন!

আট লাখ কোটি টাকায় গ্রামীণফোন কেনার দবি করেছে এক ব্যক্তি। আর এই দাবি জানিয়েছেন তিনি খোদ ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারকে।‘অদ্ভুত’ সেই ফোন কলের ঘটনা বুধবার ফেসবুকে তুলে ধরেছেন মন্ত্রী। মন্ত্রী ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, বড় অদ্ভুত একটা ফোন পেলাম একটু আগে। এক লোক ফোন দিয়ে বললো,

তার নাম রাসেল। সে গ্রামীণফোনের মালিক। ২০১৬ সালে ৮ লক্ষ কোটি টাকা দিয়ে গ্রামীণফোন কেনা হয়েছে। তার আত্মীয় স্বজনদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, তার উন্নত চিকিৎসা করার জন্য।গ্রামীণফোনের মূল প্রতিষ্ঠান টেলিনর, বাংলাদেশে জনপ্রিয় মোবাইল ফোন অপারেটর হিসেবে সেবা দিচ্ছে। বিটিআরসির তথ্যমতে, দেশে মোট মোবাইল গ্রাহকের সংখ্যা ১৭ কোটি ৮৬ লাখ, যার মধ্যে ৮ কোটি ৩১ লাখ

আরও পড়ুন= সব অপারেটরের জন্য প্রকাশ করা হয়েছে মোবাইল ডাটা প্যাকেজ নির্দেশিকা, যা ২০২২ সালের ১ মার্চ থেকে সব অপারেটর মেনে চলবে।নির্দেশিকা অনুযায়ী, যেকোনো অপারেটর এককালীন সর্বোচ্চ ৮৫টি প্যাকেজ চালু রাখতে পারবে।এতে বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো: খলিলুর রহমান। শুরুতে ডাটা প্যাকেজ নির্দেশিকা উপস্থাপনা করেন বিটিআরসির সিস্টেমস অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়- দেশের সব মোবাইল অপারেটরের তিন ধরনের প্যাকেজ থাকবে। সেগুলো হলো- নিয়মিত (Regular) প্যাকেজ, গ্রাহক কেন্দ্রিক বিশেষ (CCSP) প্যাকেজ এবং রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (R&D) প্যাকেজ। একটি অপারেটরের নিয়মিত এবং গ্রাহক কেন্দ্রিক বিশেষ প্যাকেজ মিলিয়ে সর্বোচ্চ সংখ্যা হবে ৮৫টি। তবে

নিয়মিত অথবা গ্রাহক কেন্দ্রিক বিশেষ প্যাকেজ সংখ্যা এককভাবে ৫০টির অধিক হতে পারবে না। মোবাইল ফোন অপারেটরসমূহ রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (R&D) কাজের জন্য সর্বোচ্চ ১০টি প্যাকেজ ব্যবহার করতে পারবে। প্যাকেজের ভিন্নতা নির্ধারণে দুটি প্যাকেজের মধ্যে ন্যূনতম পার্থক্য হবে ১০০ এমবি ডাটা অথবা ১০ মিনিট টকটাইম অথবা উভয়ই। সব প্যাকেজের মেয়াদ ০৩/০৭/১৫/৩০ দিন হিসেবে করতে হবে।