bangla music

bangla music

ক্রিকেট

টস সম্পুর্ন দেখে নিন কে ব্যাটিংয়ে

টি-টোয়েন্টিতে চিরাচরিত নিয়ম, টস জিতলেই বোলিং। দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে নিয়মের ব্যত্যয় ঘটালেন না অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক অ্যারোন ফিঞ্চ। টস জিতে তিনি প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন এবং ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানালেন পাকিস্তানকে।

বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি পাকিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়া। সুপার টুয়েলভে ৫ ম্যাচের সবগুলো জিতেই সেমিতে উঠে এসেছে পাকিস্তান।অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়া হেরেছে একটি ম্যাচে। কিন্তু সুপার টুয়েলভে কে কত ম্যাচ জিতেছে নাকি অপরাজিত থেকেছে, তা আর হিসেব হবে না সেমিফাইনালে। আজ যারা ভালো খেলবে, তাদেরই গলাতেই উঠবে জয়ের মালা।বিস্তারিত আসছে

আরও পড়ুনঃদুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাঠে আজ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়া মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তানের। পাকিস্তানের পারফরম্যান্স নিয়ে অস্ট্রেলিয়া শঙ্কায় থাকলেও সাবেক অসি অলরাউন্ডার শেন ওয়াটসন বলছেন ভিন্ন কথা। তার মতে পাকিস্তানের সামনে বাধা হয়ে দাঁড়াবে তাদের বাঁ-হাতি ফাস্ট বোলার মিচেল স্টার্ক। তিনি স্টার্ককে ‘অস্ট্রেলিয়ার জন্য বড় খেলোয়াড়’ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক ভিডিও পোস্ট করেন ওয়াটসন। সেখানেই তিনি স্টার্কের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন। ওয়াটসন বলেন, ‘স্টার্ক এখন তার সেরা অবস্থানে রয়েছেন। পাকিস্তানের প্রথম সারির ব্যাটারদের জন্য বাঁধা হয়ে দাড়াবেন তিনি। স্টার্ক আরও উন্নতি করেছেন নিজের এবং আগুনে জ্বলছে তার মধ্যে। এবারের আসরে দারুণ ছন্দ খুঁজে পেয়েছেন তিনি।’

পাকিস্তানের দুর্ধর্ষ ওপেনিং জুটি ভেঙে দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে স্টার্কের। ওয়াটসন এমনটাই বিশ্বাস করেন। একইসঙ্গে আইসিসির বড় ইভেন্টগুলোতে স্টার্কের অতীত বড় ভরসা যোগাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া এবং ওয়াটসনের মনে। সাবেক অসি অলরাউন্ডার মনে করেন, বিশ্বকাপের মত আসরে এ ধরনের জুটির ভেঙে উইকেট নেয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে স্টার্কের। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি স্টার্ক এখানেও এমন কিছু করে দেখাতে পারবে।’

অস্ট্রেলিয়া কিভাবে পাকিস্তানের অজেয় যাত্রা থামাতে পারে সে সম্পর্কে নিজের মতামত জানাতে গিয়ে ওয়াটসন বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া অবশ্যই পাকিস্তানকে তাদের সেরাটা প্রদর্শন করতে দেবে না।’অবাধ্য এক পাগলাঘোড়ার মত এবারের বিশ্বকাপে ছুটছে পাকিস্তান। তাদেরকে এখনও হারাতে পারেনি কেউ। সুপার টুয়েলভসের ৫টি ম্যাচের সবগুলো জিতেই সেমিফাইনালে উঠে এসেছে তারা। ১০ উইকেটে হারের লজ্জায় ডুবিয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকেও।