bangla music

bangla music

জাতীয়

মেয়েকে জোর করে যৌন কাজে লিপ্ত, বাবা-মা গ্রেপ্তার

বরিশালে মেয়েকে জোর করে যৌন কাজে লিপ্ত করার অভিযোগে বাবা-মাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত বাবা-মাসহ তিনজন জেল হাজতে রয়েছে। বরিশাল নগরীর ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ুয়া ১৪ বছর বয়সী মেয়েটিকে পূর্ব পরিচিত মধু ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত করতে বাধ্য করে

বাবা-মা। গত জুন থেকে অক্টোবর পর্যন্ত তাকে শতাধিকবার যৌন নির্যাতন করেছে আনোয়ার।এ নিয়ে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয় মেয়েটির বড় বোন। প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পায় বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ।রবিবার বিকেলে তাদের তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। আদালতের মাধ্যমে তাদের জেল হাজতে

পাঠানো হয়। নির্যাতনের শিকার কিশোরীকে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে। এদিকে এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানিয়েছে সচেতন মহল। বিএমপি’র উপ পুলিশ কমিশনার আলী আশরাফ বলেন, ‘যে শিশুটি ভুক্তোভোগী তার বড়বোন আমাদের কাছে বাদী হয়ে মামলা করেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে আমরা তিনজনকে

গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছি।’পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাড. একেএম জাহাঙ্গীর বলেন, ‘এ ঘটনার তদন্ত পরবর্তীতে সত্যতা বের হবে। এই ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয়। তদন্ত করে দোষীদের শাস্তির আওতায় আনা হবে।’

আরও পড়ুন=প্রিয়াঙ্কা বলছেন, “এই ইন্ডাস্ট্রিতেই বড় হয়ে উঠেছি। আর তাই আমার চেহারার আকৃতি কেমন, গড়ন কেমন, এসব নিয়ে খুব সচেতন ছিলাম। সব সময়ে শরীরের প্রতিটি অংশ দেখতাম। ২০ বছরের আশপাশে তখন আমার বয়স। ভাবতাম এটাই স্বাভাবিক। অন্যান্য অল্প বয়সিদের মতোই আমি ভাবতাম পারফেক্ট ফো‌টোশপড ছবি, সব সময়ে সুন্দর ভাবে রাখা চুল এগুলিই ঠিক।

আমার আসল চুল নিয়ে কখনওই বেরোতাম না। সব সময়ে ব্লো ড্রাই করা থাকতো।” প্রিয়াঙ্কা আরও বলছেন, “আমার জন্য এটা একটা বড় যাত্রা ছিলো কারণ এই বিনোদন জগতেই আমি বড় হয়ে উঠেছি। আমার দিকে যা ছুড়ে দেওয়া হয়েছে, আমি তাই শিখেছি।” কিন্তু একটা সময় থেকেই সমস্ত কিছু বদলে যেতে থাকে। ৩০ বছর বয়স হতেই নানান রকমের মন্তব্য আসতে থাকে প্রিয়াঙ্কা’র কাছে।