bangla music

bangla music

জাতীয়

খালেদা জিয়া আমাকে দেশছাড়া করেছিলেনঃ তসলিমা নাসরিন

আলোচিত ও সমালোচিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন। গতকাল বুধবার রাতে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে দেওয়া একটি পোস্টে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর সুস্থতা কামনা করেন তিনি।এদিন ফেসবুক পোস্টে তসলিমা নাসরিন লিখেছেন, ‘খালেদা জিয়ার সরকার ১৯৯৪ সালে লোকের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়েছি এ অভিযোগ করে আমার বিরুদ্ধে মামলা করেছিল।

গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিল।আমার লেখা লজ্জা, উতল হাওয়া, ক, সেইসব অন্ধকার নিষিদ্ধ করেছিল। ছলে বলে কৌশলে আমাকে দেশ থেকে বের করেছিল। দেশে আর প্রবেশ করতে দেয়নি।তারপরও আমি চাই, খালেদা জিয়াকে যদি বিদেশে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যেতে চায় শুভাকাঙ্ক্ষীরা, নিয়ে যাক। তারপরও আমি চাই তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন।’

আরও পড়ুন=রাতে দুদলের প্রথম লড়াইয়ে আধিপত্য ছিলো ম্যানচেস্টার সিটির। কিন্তু লিওনেল মেসির দারুণ নৈপুণ্যে এদিন প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে হেরে আসে সিটিজেনরা। এবার, ঘরের মাঠে পিএসজিকে পেয়ে সেই হারের প্রতিশোধ নিল পেপ গার্দিওলার দল। শুরুতে পিছিয়ে পড়লেও দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচ জিতে নিলো স্বাগতিকরা।প্রতিশোধ নেওয়ার ম্যাচ জিতে আসরের গ্রুপ সেরা হওয়া নিশ্চিত হলো ইংলিশ চ্যাম্পিয়নদের। (বুধবার) রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে ঘরের মাঠে ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে ম্যানচেস্টার সিটি। সিটিজেনদের হয়ে গোল দুটি করেছেন রাহিম স্টার্লিং ও গ্যাব্রিয়েল জেসুস। আর পিএসজির হয়ে একমাত্র গোলটি করেন কিলিয়ান এমবাপ্পে।

প্রথম লেগে হারের প্রতিশোধ নিতে এদিন ইত্তিহাদে ম্যাচের শুরু থেকেই আধিপত্য বজায় রাখে ম্যান সিটি। বল দখলের লড়াইয়ে ৫৪ শতাংশ বল নিজেদের পায়ে রাখে স্বাগতিকরা। গোলমুখে শটের ক্ষেত্রেও মেসিদের চেয়ে দ্বিগুণ এগিয়ে ছিল পেপ গার্দিওলার দল। সব মিলিয়ে পিএসজির গোলমুখে ১৬টি শট নেয় সিটি, যেখানে মৌরিচিও পচেত্তিনোর দল শট নিতে পারে কেবল ৭টি।

এদিকে আক্রমণ প্রতি আক্রমণে দুদলের প্রথমার্ধ গোলশূন্য ড্রয়ে শেষ হয়। বল দখল কিংবা গোলমুখে শটে পিছিয়ে থাকলেও প্রথম গোলটি করে পিএসজিই। বিরতির পর মাঠে ফিরে ৫০তম মিনিটে সফরকারীদের এগিয়ে দেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। তবে, সেই লিড বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি ফরাসিরা।ম্যাচের ১৩ মিনিট পরই সমতায় ফিরে ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যাচের ৬৩তম মিনিটে গ্যাব্রিয়েল জেসুসের পাস থেকে দারুণ ফিনিশিংয়ে গোলটি করেন রাহিম স্টার্লিং।

ইংলিশ ফরোয়ার্ডের গোলে যোগানদাতা জেসুসই পিএসজির কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন।৭৬তম মিনিটে বার্নাডো সিলভার পাস থেকে গোল করে স্বাগতিকদের জয় অনেকটাই নিশ্চিত করে ফেলেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। পুরো ম্যাচে বেশ কয়েকবার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি পিএসজির আক্রমণভাগে দু সেনানী নেইমার-মেসিরা। ম্যাচের বাকি সময় আর কোন গোল না হলে ২-১ গোলের জয়ে মাঠে ছাড়ে পেপ গার্দিওলার দল।