bangla music

bangla music

জাতীয়

বাবার হাতে দুই মেয়ে খু`ন, পরে পুলিশসহ আরও তিনজনকে হ`ত্যা

ভারতে স্ত্রীর সামনে দুই মেয়েকে খু`ন করেছে বাবা। পরে স্ত্রীকে মারতে গেলে বাধা দিতে গিয়ে পু`লিশ ও অটো চালকসহ আরও তিনজনের প্রাণহানি ঘটেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় এমন মর্মান্তিক ঘ`টনা ঘটেছে ভারতের ত্রিপুরার খোয়াই।এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন আ`হত হয়েছেন। স্থানীয় বেশ কয়েকটি বাড়িতেও ব্যাপক ভাঙচুর করেছে বলে অভিযোগ

রয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, মা`নসিক ভা`রসাম্যহীন হওয়ায় এই কাণ্ড ঘটিয়েছে ওই ব্যক্তি। অভিযুক্তকে গ্রে`ফতার করেছে পু`লিশ।জানা যায়, অ`ভিযুক্ত প্রদীপ দেবরায় উত্তর রামচন্দ্রঘাটের শেওড়াতুলির বাসিন্দা। তিনি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি। শুক্রবার সন্ধ্যায় কাজ সেরে নিজের বাড়িতে আসেন তিনি। পরে পারিবারিক কলহে স্ত্রীর

সামনে ধা`রাল অ`স্ত্র দিয়ে দুই ক`ন্যাসন্তানকে কো`পান। চোখের সামনে নিজের সন্তানদের ওপর অ`ত্যাচার মানতে পারেননি প্রদীপের স্ত্রী মীনা পাল। দুই সন্তানকে বাঁচাতে যান তিনি। সেই সময় স্ত্রীকে ধা`রাল অ`স্ত্র দিয়ে আ`ঘাত করে প্রদীপ। পরে বাড়ি ছেড়ে কোনোক্রমে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন মীনা। স্ত্রীকে ধরতে দৌড়াতে শুরু করেন প্রদীপ।

একপর্যায়ে পথে হাত নাড়িয়ে একটি অটো দাঁড় করান তিনি। এরপর ধা`রাল অ`স্ত্র দিয়ে অটোর সামনের কাচে সজোরে আ`ঘাত করেন। অ`টোয় থাকা যাত্রীদের আ`ঘাত করেন। একজনের চোট গুরুতর। খবর পাওয়ামাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছান খোয়াই থানার সেকেন্ড অফিসার সত্যজিৎ মল্লিক। তাকেও ধা`রাল অ`স্ত্র দিয়ে আ`ঘাত করা হয়।র`ক্তা`ক্ত অবস্থায়

প্রত্যেককে উদ্ধার করে জিবি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অ`ভিযুক্তের স্ত্রীর অবস্থা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক। অভিযুক্তের দুই সন্তান, পুলিশ কর্মকর্তা, অটোচালকসহ পাঁচজনের মৃ`ত্যু হয়েছে। অ`ভিযুক্তকে গ্রে`ফতার করেছে পু`লিশ। কিন্তু কেন এমন কাজ করলেন তিনি? অভিযুক্ত প্রদীপ জানায়, ‘সকলেই বি`শ্বাসঘাতক’। তবে কী কারণে খু`ন করেছে, সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছুই জানায়নি প্রদীপ।